জরুরি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন প্রতিটি ওয়েবসাইটের দরকার

0
339
সেরা ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন

ওয়েবসাইট তৈরি করার পর ওয়েবসাইটকে আরও ভালো ভাবে সকলের সামনে তুলে ধরতে হয়। তাতে আরও কিছু অপশন যুক্ত করতে হয় যেমন যোগাযোগের ফর্ম। এই সকল কাজ আপনাকে প্লাগইন ইন্সটল করে করতে হবে। ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন আপনার ওয়েবসাইটকে আরও সহজ সরল করে তোলে। আপনার ওয়েবসাইটে যদি অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেম করতে চান তবে প্লাগইন দিয়ে করতে হবে। যদি আপনার সাইটকে আরও ভালো ভাবে ব্যবহারযোগ্য করে তুলতে চান তবে প্লাগইন দরকার পড়বে। ওয়ার্ডপ্রেস এ প্রায় ৫০০০০ প্লাগইন আছে, সেখান থেকেই আমরা বেছে দিয়েছি কিছু অপরিহার্য প্লাগইন যা প্রতিটি ওয়েবসাইটের অবশ্যই দরকার।

তাহলে আসুন দেখে নেওয়া যাক ২০১৯ সালের সেরা ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন

১. Contact Form 7

প্রথমেই যে ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন এর কথা বলব, সেটি হল কন্ট্যাক্ট ফর্ম ৭। আপনার ওয়েবসাইটে যদি যোগাযোগের ফর্ম তৈরি করতে চান তবে এর চেয়ে ভালো ফর্ম বিনামূল্যে পাবেন না। এই প্লাগইনের সাহায্যে আপনি একাধিক যোগাযোগের ফর্ম তৈরি করতে পারবেন। আপনি অনায়াসে আপনার ফর্মে গুগল reCaptcha যুক্ত করতে পারবেন।

আপনার ওয়েবসাইটে যোগাযোগের ফর্ম তৈরি করতে একটুও কোড করার দরকার পড়বে না। আপনার ওয়েবসাইট ব্যবহারকারীরা অনায়াসে এই ফর্ম ব্যবহার করে আপনার সাথে যোগাযোগ করতে পারবে। আর আপনি তাদের তথ্য সরাসরি আপনার মেইলে পেয়ে যাবেন।

প্রায় ৫০ লক্ষেরও বেশী মানুষ এই ফর্ম তাঁদের ওয়েবসাইটে ব্যবহার করছেন। আমাদের ওয়েবসাইটে আপনি যে ফর্ম দেখতে পাবেন সেটিও এই ফর্মের সাহায্যেই তৈরি। তাহলে এখনি এই প্লাগইন ইন্সটল করে ফেলুন।

ওয়ার্ডপ্রেস.অর্গ থেকে কন্ট্যাক্ট ফর্ম ডাউনলোড করুন

২. Yoast SEO

প্রতিটি ওয়েবসাইটের জন্য SEO বা সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন হল গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আর এখানেই Yoast SEO প্লাগইনের ধারে কাছে কেউ নেই! আপনার ওয়েবসাইটের প্রতিটি পাতা ও পোস্ট আলাদা আলাদা ভাবে SEO Friendly করে তুলতে পারবেন। এই প্লাগইন ব্যবহার করে আপনার ওয়েবসাইট অনায়াসে গুগলের সার্চ পেজে জায়গা করে নিতে পারবে।

Yoast SEO প্লাগইন ব্যবহার করা খুবই সোজা। এই প্লাগইন স্বয়ংক্রিয় ভাবে আপনার ওয়েবসাইট সম্পর্কে গুগলকে জানাতে থাকে। আপনার ওয়েবসাইটের RSS পেজ তৈরি করা এবং সেই পেজকে গুগলে সাবমিট করা সকল কাজই সুন্দর ভাবে করবে এই প্লাগইন।

এই ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন ইন্সটল করার পর আপনার কাজ হবে প্লাগইনের নির্দেশ মতো আপনার কন্টেন্ট কে বা তথ্যকে গুছিয়ে তোলা। কীভাবে H2 ট্যাগ দেবেন, কোথায় ফোকাস কী-ওয়ার্ড দেবেন এই সবই আপনাকে নির্দেশ করবে। ৫০ লক্ষেরও বেশী মানুষ এই প্লাগইন তাঁদের ওয়েবসাইটে ব্যবহার করছেন। তাহলে আপনিও ইন্সটল করে নিন আর আপনার ওয়েবসাইটকে SEO Friendly করে তুলুন।

Yoast SEO ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন

৩. Akismet Anti-Spam

স্প্যাম একটি কঠিন সমস্যা ওয়েবসাইটের জন্য। স্প্যামাররা আপনার ওয়েবসাইটে এসে আপনার পোস্টে মন্তব্য করে এবং নিজেদের ওয়েবসাইটের লিংক যুক্ত করে। এর ফলে আপনার ওয়েবসাইটের সুনাম নষ্ট হয় এবং সাইট তাড়াতাড়ি খুলতে চায় না। এইসব আপদের থেকে বাঁচতে Akismet Anti-Spam প্লাগইনের সাহায্য নিতে হবে।

Akismet Anti-Spam প্লাগইন ওয়ার্ডপ্রেস এর নিজস্ব তৈরি। এটি ইন্সটল করার সাথে সাথেই কাজ শুরু করে দেবে। আপনাকে নিজে থেকে কিছুই করতে হবে না। কোন স্প্যাম বা ভুয়োমন্তব্য এলে এই প্লাগইন নিজে থেকেই তা স্প্যাম ফোল্ডারে ফেলে দেয় এবং আপনার ওয়েবসাইটকে সুরক্ষিত রাখে।

Akismet প্লাগইন একেবারে বিনামূল্যে ডাউনলোড করতে পারবেন। যদিও এই প্লাগইনের একটি প্রিমিয়াম ভার্সন আছে। সামান্য কিছু অর্থ খরচ করে আপনি তা কিনতে পারবেন। এই জনপ্রিয় প্লাগইন প্রায় ৫০ লক্ষেরও বেশী মানুষ তাঁদের ওয়েবসাইটে ব্যবহার করছেন।

Akismet Anti-Spam প্লাগইন ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন 

৪. TinyMCE Advance

এটি একদমই সাধারণ প্লাগইন। কিন্তু এর গুরুত্ব অপরিসীম। এই প্লাগইন আপনার লেখাকে আরও সুন্দর করে তুলবে। কন্টেন্ট লেখার সময় যদি আপনি কোন অপশন খুঁজে না পান, (যেমন লেখার ফন্ট ছোট বা বড় করা, টেবিল যুক্ত করা, কোন নির্দিষ্ট ফন্টে লেখা ইত্যাদি) তবে এই প্লাগইন ইন্সটল করে নিন। আপনার পোস্ট বা পেজ তৈরি করার সময় আরও বেশি অপশন যুক্ত করতে পারবেন।

আপনার লেখার টুল বারে যে সকল অপশন আগে থেকে রয়েছে, সেসব ছাড়াও আরও অনেক বেশী অপশন যুক্ত করতে পারবেন। যেমনঃ কোন লেখার রঙ কি হবে আপনি এই প্লাগইনের সাহায্যে রঙ পরিবর্তন করতে পারবেন। যদি কোন টেবিল ব্যবহার করতে চান, তবে এই প্লাগইন আপনাকে একটি সাধারণ টেবিল তৈরি করতে সাহায্য করবে। প্রায় ২০ লক্ষেরও বেশী মানুষ এই প্লাগইন তাঁদের ওয়েবসাইটে ব্যবহার করছেন। একেবারে বিনামূল্যে পাওয়া এই প্লাগইন অবশ্যই আপনার দরকার।

TinyMCE Advance ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন

৫. Wordfence Security

ওয়েবসাইট তৈরি করে থেমে গেলে হবে না। আপনার ওয়েবসাইটকে সুরক্ষিত রাখাটাও জরুরি। আমাদের কম্পিউটারে যেমন ভাইরাস অ্যাটাক হয়, তেমনি ওয়েবসাইটে ম্যালওয়্যার অ্যাটাক হতে পারে। এই ম্যালওয়্যার এর সাহায্যে হ্যাকাররা আপনার ওয়েবসাইটকে হ্যাক করতে পারে অথবা আপনার ওয়েবসাইটের গোপন তথ্য চুরি করতে পারে।

সেকারণেই সুরক্ষার জন্য ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন ইন্সটল করা খুবই প্রয়োজন। আর এখানেই Wordfence Security এর গুরুত্ব অপরিসীম। এই প্লাগইন আপনার ওয়েবসাইটের সুরক্ষা কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেবে। যেমনঃ

  1. আপনার ওয়েবসাইটের কোর ফাইল বা মূল ফাইল গুলোর ওপরে নিয়মিত নজরদারি চালাবে এবং কোন সমস্যা দেখা দিলে আপনাকে জানিয়ে দেবে অথবা নিজেই ঠিক করে নেবে।
  2. আপনার ওয়েবসাইটের মধ্যে কোন ম্যালওয়্যার আছে কিনা সেসব নিয়মিত স্ক্যান করবে।
  3. আপনি পাবেন একটি ফায়ারওয়াল যার সাহায্যে আপনি যে কোন আইপি অ্যাড্রেস ব্লক করতে পারবেন।
  4. আপনি পাবেন প্রকৃত সময়ের (real time) ভিজিটর ডেটা, কে কখন আপনার ওয়েবসাইটে আসছে, কোথা থেকে আসছে সকল তথ্য পাবেন। এমনকি কোন কোন Bots বা Crawler আপনার ওয়েবসাইটে আসছে আপনি সে সম্পর্কেও জানতে পারবেন। (এই তথ্য গুগল আনালাইটিক্স আপনাকে দেখাবে না)
  5. আপনার ওয়েবসাইটের জরুরি সমস্যার জন্য আপনি ইমেইলের মাধ্যমে জানতে পারবেন।
  6. Brute Force হ্যাকিং এর থেকে এই প্লাগইন আপনাকে রক্ষা করবে।

এরকমই আরও অনেক গুণ আছে এই ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন এর। এখনো অব্দি প্রায় ৩০ লক্ষ জন তাঁদের ওয়েবসাইটে ব্যবহার করছেন এই প্লাগইন। তাই আপনিও দেরী না করে এটি ইন্সটল করে নিন এবং আপনার ওয়েবসাইটের সুরক্ষা মজবুত করুন।

Wordfence Security প্লাগইন ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন

৬. WP Super Cache

আপনার ওয়েবসাইট কত দ্রুত তার ওপরেই আপনার ওয়েবসাইটের জনপ্রিয়তা নির্ভর করে। যে সকল ওয়েবসাইট ধীরে খোলে তার প্রতি মানুষের আস্থা থাকে না। এখন ফোর-জি ফাইভ-জি এর যুগ, তার সাথে তাল মিলিয়ে আপনার ওয়েবসাইটকেও করে তুলতে হবে আরও দ্রুততর। আপনার ওয়েবসাইট যদি ৫ সেকেন্ডের মধ্যে না খোলে তবে আপনি ৫০ শতাংশ ভিজিটর হারাবেন।

যদিও আপনার ওয়েবসাইটের স্পীড ওয়েব হোস্টিং এর ওপর নির্ভর করে, কিন্তু এই প্লাগইন ব্যবহার করলে আপনার ওয়েবসাইট আরও দ্রুত হবে। এটি ওয়ার্ডপ্রেস এর নিজস্ব ডেভেলপড প্লাগইন। এটি আপনার ওয়েবসাইটের কোডকে minify করে ব্রাউজারে প্রেরন করে। এতে করে আপনার ওয়েবসাইট আরও দ্রুত হয়। ২০ লক্ষেরও বেশী মানুষ এই প্লাগইন ব্যবহার করে তাঁদের ওয়েবসাইটকে আরও দ্রুত করছে। আপনিও এটি ইন্সটল করে নিন।

WP Super Cache ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন

৭. Google Analytics Dashboard for WP

আপনি যদি প্রকৃত সময়ের (real time) আপডেট আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ডে পেতে চান তবে এই প্লাগইন ব্যবহার করুন। আপনার গুগল অ্যানালাইটিক্সের সকল তথ্য আপনি সহজেই ড্যাশবোর্ডে পেয়ে যাবেন। আপনাকে আলাদা করে গুগল অ্যানালাইটিক্সে লগইন করে দেখতে হবে না।

এই প্লাগইন আপনাকে আপনার ওয়েবসাইট ও ওয়েবসাইটের ভিজিটর সম্পর্কে অনেক তথ্য দিয়ে থাকে। যেমনঃ

  • কোন কোন পাতায় আপনার ওয়েবসাইট ব্যবহারকারীরা প্রবেশ করছে।
  • কোন কোন পাতা ঠিক মতো চলছে না।
  • আপনার ভিজিটররা কোথা থেকে আপনার ওয়েবসাইটে প্রবেশ করছে।
  • তারা কী ধরণের ডিভাইস ব্যবহার করছে যেমন কম্পিউটার, মোবাইল, ট্যাবলেট ইত্যাদি। এমনকি তারা কোন ব্রাউজার ব্যবহার করছে আপনি তাও জানতে পারবেন।
  • আপনার ভিজিটর মহিলা না পুরুষ এবং তাঁদের বয়স সম্পর্কে একটি আন্দাজ পাবেন।

আপনার ওয়েবসাইটের জন্য এই প্লাগইন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আপনি আপনার ওয়েবসাইট ব্যবহারকারীদের সম্পর্কে জানতে পারবেন এবং সেইমতো পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারবেন।

Google Analytics Dashboard ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন

৮. Smush Image Compression and Optimization

ওয়েবসাইটে ছবি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কিন্তু এই ছবিই আপনার ওয়েবসাইটকে ধীর করে দেয় যদি না আপনি ঠিক মাপে ছবি আপলোড করেন। সাথে সাথে আপনার ছবির অপটিমাইজেশন করাও জরুরি। আর এই কাজটিই অনায়াসে এই প্লাগইনের মাধ্যমে করতে পারবেন।

আপনি আপনার ওয়েবসাইটের সাপেক্ষে মাপ নির্দিষ্ট করে দিতে পারবেন, এবং এই প্লাগইন আপনার সমস্ত ছবিকে সেই মাপে নিয়ে যাবে। এছাড়া প্রতিটি ছবি অপ্টিমাইজ করে দেবে। ফলে আপনার ওয়েবসাইট আরও হালকা এবং দ্রুত হবে।

Smush Image Compression ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন

৯. UpdraftPlus WordPress Backup Plugin

Data backup বা তথ্য সংরক্ষণ ওয়েবসাইটের ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। হঠাৎ করে যদি একদিন দেখেন আপনার কষ্ট করে করা সমস্ত কাজ ভ্যানিশ হয়ে গেছে তবে সেটা ভালো ব্যাপার হবে না। কিন্তু যদি আপনি ব্যাকআপ রেখে দেন তবে এই সমস্যা থেকে বাঁচতে পারবেন।

আপনার ওয়েব হোস্টিং কোম্পানির নিজেদের তথ্য সংরক্ষণ প্রযুক্তি থাকতে পারে, তবুও আপনি সর্বদা নিজের ব্যাকআপ রাখবেন। এই ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইনের সাহায্যে অনায়াসে আপনি আপনার ব্যাকআপ আপনার নিজস্ব গুগল ড্রাইভে বা অ্যামাজন এসথ্রি তে রেখে দিতে পারবেন। তাই আজই এই প্লাগইন ইন্সটল করে আপনার তথ্য সুরক্ষিত রাখুন।

Updraftplus WordPress Backup ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন

১০. Elementor Page Builder

ওয়েব ডিজাইনের কোন শেষ নেই। একই ডিজাইন দীর্ঘদিন রাখাও উচিৎ নয়। আর কোন প্লাগইন ছাড়া ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে হলে কোড সম্পর্কে জ্ঞান থাকা চাই। আর এই কাজটিই আপনি সহজে করতে পারবেন এই ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন ইন্সটল করে। কোন রকম কোডিং ছাড়াই শুধু টেনে এনে ছেড়ে দিন।

আপনার করা ডিজাইন আপনি সরাসরি দেখতে পারবেন এবং সেইমতো ব্যবস্থা নিতে পারবেন। তাহলে আজই ইন্সটল করে নিন এই প্লাগইন।

Elementor প্লাগইন ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন

এতক্ষণ আপনারা সেরা দশ ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন দেখলেন যা প্রতিটি ওয়েবসাইটের দরকার। এবার জানাবো একটি বিশেষ প্লাগইন যার সাহায্যে আপনি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটকে একটি অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট বা ই-কমার্স ওয়েবসাইটে পরিণত করতে পারবেন।

১১. WooCommerce

ওয়ার্ডপ্রেস এর নিজের তৈরি এই প্লাগইন দিয়ে আপনি খুব সহজে একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন। আপনি যদি অনলাইনে সেল করে আয় করতে চান বা টাকা ইনকাম করতে চান তবে এই প্লাগইন আপনার জন্য। এই প্লাগইন আপনার সকল কাজ খুব সহজে করে দেবে। যেমন আলাদা করে প্রডাক্ট যুক্ত করা, অনলাইন পেমেন্ট আদায় করা, কিম্বা আপনার ক্রেতাদের কাছে স্বয়ংক্রিয় ভাবে বিল পাঠানো সকল কাজ অনায়াসে করতে পারবেন।

প্রায় ৪০ লক্ষেরও বেশী অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট এই প্লাগইন ব্যবহার করে বানানো হয়েছে। তাহলে দেরী কেন? আজই তৈরি করুন শপিং ওয়েবসাইট।

WooCommerce ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন

তাহলে আপনি জানলেন কোন কোন প্লাগইন বেশি দরকারি। যদি আপনি অন্যকোন প্লাগইন সম্পর্কে জানাতে চান তবে নীচে মন্তব্য করে জানান। আর যদি কোন সমস্যা হয় আপনার ওয়েবসাইট নিয়ে, সেটিও আমাদের জানাতে পারেন। আমরা যথাসাধ্য সাহায্য করার চেষ্টা করব।

আরও পড়ুন